অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার

অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

অনন্য সব প্রযুক্তির ন্যায় গাড়ী উৎপাদন ও নকশায়ও বৈচিত্র আজকাল আর বিষ্ময়কর কিছু নয়। প্রতিনিয়তই গাড়িতে নতুন প্রযুক্তি সংযোজিত হচ্ছে এবং গাড়ির বিভিন্ন সব সমস্যার আধুনিক সমাধান ব্যবহৃত হচ্ছে। এর পেছনে অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারদের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি।

এক নজরে একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার

সাধারণ পদবী: অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার
বিভাগ: ইঞ্জিনিয়ারিং
প্রতিষ্ঠানের ধরন: প্রাইভেট ফার্ম/কোম্পানি
ক্যারিয়ারের ধরন: ফুল-টাইম
লেভেল: এন্ট্রি, মিড
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য অভিজ্ঞতা সীমা: ০ – ২ বছর
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳৩০,০০০ – কাজ, প্রতিষ্ঠান ও অভিজ্ঞতাসাপেক্ষ
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বয়স: ২৫ বছর
মূল স্কিল: গাড়ির ইঞ্জিনের খুঁটিনাটি জানা, গাড়ির গ্রাহকের চাহিদা ও বাজারে বিকাশমান গাড়ির নতুন প্রযুক্তি সম্পর্কে তাদের জানানো, যন্ত্রপাতি সম্পর্কে ভালো জ্ঞান
বিশেষ স্কিল: সৃজনশীলতা, প্রজেক্ট ব্যবস্থাপনা, সম্পদ ব্যবস্থাপনা

একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার কোথায় কাজ করেন?

  • গাড়ি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান
  • গাড়ি উৎপাদনকারক প্রতিষ্ঠান
  • কার সার্ভিস সেন্টার
  • পরিবহন প্রতিষ্ঠান

একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার কী ধরনের কাজ করেন?

গাড়ি উৎপাদন ক্ষেত্রে: যেমন-ডিজাইন, ড্রয়িং ও ক্যালকুলেশন।

গাড়ি সেলস এবং সার্ভিসিং: গাড়ি বিপণন,বিক্রয় ও বিতরণের কাজ।

গাড়ি বিক্রয়-পরবর্তী সার্ভিসিং বলতে ওয়ারেন্টিযুক্ত বা সার্ভিস ফি দিয়ে গাড়ির বিভিন্ন ধরনের মেরামত ও সার্ভিসিং করা।

একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ চার বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা ইন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স সম্পন্ন করতে হবে। তবে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং থেকে ব্যাচেলর ডিগ্রি সম্পন্ন করার পর বিদেশে উচ্চতর শিক্ষা নেয়া সম্ভব।

বয়সঃ প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষে বয়সের সীমা নির্ধারিত হয়। সাধারণত আপনার বয়স কমপক্ষে ২৫ বছর হতে হবে।

অভিজ্ঞতাঃ এ পেশায় অভিজ্ঞদের প্রাধান্য রয়েছে। সাধারণত ১-২ বছরের অভিজ্ঞতা কাজে আসে।

একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • ইঞ্জিন ও অন্যান্য বিষয়ে সার্বিক তথ্য
  • গাড়ী বিক্রয় বিভাগে কাজ করলে কোম্পানির সেলস পলিসি এবং গ্যারান্টি/ওয়ারেন্টির শর্ত জানা
  • গ্রাহকের চাহিদা ও নতুন প্রযুক্তি সম্পর্কে জানার আগ্রহ

নন-টেকনিক্যাল জ্ঞানের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো –

  • সৃজনশীল উপায়ে ও যৌক্তিকভাবে সমস্যা সমাধানের দক্ষতা;
  • বিশ্লেষণী ক্ষমতা, যা খুঁটিনাটি বিষয়গুলো পর্যবেক্ষণে সাহায্য করতে পারে;
  • অন্যদের সাথে কাজ করার মানসিকতা থাকা;
  • বিভিন্ন ধরনের কাজ একসাথে সামলানোর দক্ষতা;
  • বড় কারখানায় ভারি যন্ত্রপাতি নিয়ে কাজ করার মানসিকতা থাকা;

কোথায় পড়বেন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং?

ডিপ্লোমা কোর্সের ক্ষেত্রে আমাদের দেশে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যেমন –

  • ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট
  • বাংলাদেশে-সুইডেন পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট
  • বাংলাদেশ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট
  • শ্যামলী আইডিয়াল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউ
  • মটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি
  • মিরপুর পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট
  • চিটাগাং টেকনিক্যাল কলেজ
  • সাকিনা আজহার টেকনিক্যাল কলেজ
  • বাংলাদেশ-কোরিয়া টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার (বিকেটিটিসি)

অন্যদিকে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের উপর বিএসসি ডিগ্রি নেবার ব্যবস্থা আছে।

একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারের মাসিক আয় কেমন?

  • সদ্য পাস করা একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার প্রতিষ্ঠানভেদে ১২ থেকে ২২ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন পেতে পারেন।
  • হাতে কলমে অভিজ্ঞতার পর একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারের বেতন সাধারণত ৫০ থেকে ১ লাখ টাকা বা তারও বেশি হতে পারে।

একজন অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের সব ক্যারিয়ারের মত অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এও অভিজ্ঞতা ও কাজ জানার উপর ক্যারিয়ার নির্ভর করে। ভালো কাজ জানলে দেশের গন্ডি পেরিয়ে বিদেশেও ভাল আয়ের কাজ পাওয়া সম্ভব। এছাড়া অনেকে নিজেরাই নিজেদের সার্ভিস সেন্টারের মাধ্যমে আয়ের উৎস তৈরি করেছেন, তাই ইঞ্জিনিয়ারিং এ আগ্রহ থাকলে এ পেশায় আপনিও গড়তে পারেন আপনার কাংখিত ক্যারিয়ার।

 

Loading

3 thoughts on “অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ার

  1. I am a student of Diploma in Automobile engineering on 4th semester at Dhaka Polytechnic Institute.
    I love Automobile very much.
    Hope B.sc in Automobile Engineering will be launched shortly in our country.
    I think those who have studying in Automobile engineering have a bright future.

    1. আমাদেরও তাই প্রত্যাশা। অসংখ্য শুভকামনা আপনার ও এ সেক্টরের সকলের জন্য। ক্যারিয়ারকীর সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ!

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।