এসি টেকনিশিয়ান

এসি টেকনিশিয়ান: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

একটি বিল্ডিংয়ের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য কারিগরি কিছু ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হয়। যেমন, বাতাস চলাচলের জন্য ভালো ভেন্টিলেশন। কিংবা প্রয়োজনে এয়ার কন্ডিশনার ইন্সটল করা। একজন এসি টেকনিশিয়ান এ কাজগুলোর দায়িত্বে থাকেন।

এক নজরে একজন এসি টেকনিশিয়ান

সাধারণ পদবী: এসি টেকনিশিয়ান
বিভাগ: টেকনিক্যাল
প্রতিষ্ঠানের ধরন: সরকারি, বেসরকারি, প্রাইভেট ফার্ম/কোম্পানি, উদ্যোগ
ক্যারিয়ারের ধরন: ফুল-টাইম
লেভেল: এন্ট্রি
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য অভিজ্ঞতা সীমা: ০- ২ বছর
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳১০,০০০ – ৳১৫,০০০
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বয়স: ১৮ – ২৫ বছর
মূল স্কিল: এয়ার কন্ডিশনিং সম্পর্কিত জ্ঞান
বিশেষ স্কিল: সমস্যা সমাধানের দক্ষতা, গভীর মনোযোগ, ধৈর্য

একজন এসি টেকনিশিয়ান কোথায় কাজ করেন?

  • এয়ার কন্ডিশনার ও রেফ্রিজারেটর বিক্রয়কারী ও আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান;
  • হার্ডওয়্যার ওয়ার্কশপ;
  • এয়ার কন্ডিশনার, আইপিএস ও ইলেকট্রিক পণ্য মেরামতকারী প্রতিষ্ঠান।

একজন এসি টেকনিশিয়ান কী ধরনের কাজ করেন?

  • এয়ার কন্ডিশনার ও রেফ্রিজারেটর ইন্সটলেশনে সাহায্য করা;
  • কাস্টমারের অনুরোধে নির্দিষ্ট সময় পরপর এয়ার কন্ডিশনার/রেফ্রিজারেটর ঠিক আছে কিনা, তা পরীক্ষা করা;
  • এয়ার কন্ডিশনার ও রেফ্রিজারেটরের যন্ত্রাংশ নষ্ট হয়ে গেলে মূল সমস্যা খুঁজে বের করা ও যন্ত্রাংশ মেরামত করা;
  • প্রয়োজনে যন্ত্রাংশ বদল করে দেয়া।

একজন এসি টেকনিশিয়ান কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ এইচভিএসি-আর (HVAC-R) বা এয়ার কন্ডিশনিং ও রেফ্রিজারেশন বিষয়ে ডিপ্লোমা ডিগ্রি থাকা প্রয়োজন।

বয়সঃ ১৮ – ২৫ বছরের বয়সসীমার মধ্যে শিক্ষানবীশের কাজ পেতে পারেন। অভিজ্ঞতাসম্পন্ন টেকনিশিয়ান নিয়োগের ক্ষেত্রে এ সীমা ২৫ – ৪০ বছর হতে পারে।

অভিজ্ঞতাঃ অভিজ্ঞতার বিষয়টি প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষ। কিছু ক্ষেত্রে একদম অভিজ্ঞতা নেই অথবা ১ বছরের অভিজ্ঞতা আছে, এমন যে কাউকে নিয়োগ দেয়া হয়। আবার কিছু ক্ষেত্রে ন্যূনতম ৪ বছরের অভিজ্ঞতা না থাকলে নিয়োগ পাওয়া সম্ভব নয়।

বড় প্রতিষ্ঠানগুলোতে ৭ – ১০ বছরের অভিজ্ঞতা প্রয়োজন হতে পারে। টেকনিক্যাল কাজ হবার কারণে অভিজ্ঞতাকে প্রাধান্য দেয়া হয়।

একজন এসি টেকনিশিয়ানের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • এইচভিএসি-আর (HVAC-R) অর্থাৎ হিটিং, ভেন্টিলেশন, এয়ার কন্ডিশনিং ও রেফ্রিজারেশন নিয়ে সম্যক ধারণা;
  • বৈদ্যুতিক যন্ত্র নিয়ে কাজ করার দক্ষতা;
  • খুঁটিনাটি বিষয়ে মনোযোগ দেবার ক্ষমতা;
  • ধৈর্য।

একজন এসি টেকনিশিয়ানের মাসিক আয় কেমন?

জুনিয়র টেকনিশিয়ান বা একদমই অনভিজ্ঞ হলে মাসিক সম্মানী সাধারণত ৳৬০০০ – ৳১২০০০ টাকার মতো হয়। অভিজ্ঞতার সাথে নির্দিষ্ট হারে আয় বাড়ে। তবে এটি কাজ ও প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষ।

একজন এসি টেকনিশিয়ানের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

কেমন প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন, তার উপর ক্যারিয়ার নির্ভর করে। সাধারণত জুনিয়র টেকনিশিয়ান হিসাবে যোগ করে পদোন্নতির মাধ্যমে সিনিয়র টেকনিশিয়ান ও পরে টেকনিক্যাল ম্যানেজার পদে নিয়োগ পেতে পারেন।

Loading

2 thoughts on “এসি টেকনিশিয়ান

  1. sir u can give me ac job….i am working in malaysia…12 yers i working ac..my distick tangail..my phone number …01760106878

    1. ক্যারিয়ার কী থেকে চাকুরী পাওয়ার জন্য পরামর্শ এবং দক্ষতা অর্জনে সকল প্রকার সাহায্য করা হয়। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।