কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার

কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

একজন কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার ম্যানেজার সাধারণ ভবন থেকে শুরু করে সেতু – বিভিন্ন ধরনের অবকাঠামোগত নির্মাণের অগ্রগতি সরাসরি তত্ত্বাবধান করে থাকেন।

এক নজরে একজন কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার ম্যানেজার

সাধারণ পদবী: কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার ম্যানেজার, সাইট ম্যানেজার
বিভাগ: রিয়েল এস্টেট, কনস্ট্রাকশন ও ডেভেলপমেন্ট
প্রতিষ্ঠানের ধরন: সরকারি, প্রাইভেট ফার্ম, কোম্পানি
ক্যারিয়ারের ধরন: ফুল-টাইম
লেভেল: মিড
এন্ট্রি লেভেলে অভিজ্ঞতা সীমা: ৫ – ১০ বছর
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳৪০,০০০ – ৳৮০,০০০
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বয়স সীমা: ৩৫ – ৪০ বছর
মূল স্কিল: ব্যবস্থাপনা, কর্মী ব্যবস্থাপনা, অবকাঠামোগত নির্মাণের যাবতীয় বিষয় সম্পর্কে জ্ঞান
বিশেষ স্কিল: সমস্যা সমাধানের দক্ষতা, প্রজেক্ট ব্যবস্থাপনা, সময় ব্যবস্থাপনা, যোগাযোগের দক্ষতা

একজন কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার কোথায় কাজ করেন?

  • রিয়েল এস্টেট কোম্পানি
  • ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান
  • শিল্প-কারখানা

সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রজেক্টেও কাজের সুযোগ রয়েছে এ পেশায়। যেমনঃ

  • সেতু নির্মাণ
  • বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ
  • রাস্তাঘাট মেরামত ও নির্মাণ

একজন কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার কী ধরনের কাজ করেন?

  • সামগ্রিক নির্মাণ কাজ তত্ত্বাবধান করা;
  • ডিজাইন বা নকশা অনুযায়ী কাজ এগোচ্ছে কি না তা দেখা;
  • নির্মাণ কাজের ক্ষেত্রে পূর্বনির্ধারিত মাসিক লক্ষ্য পূরণ নিশ্চিত করা;
  • নির্মাণ প্রজেক্টের কর্মীদের সুযোগ-সুবিধা ও সমস্যার ব্যাপারে খোঁজখবর রাখা;
  • প্রজেক্টে নিযুক্ত সিভিল ইঞ্জিনিয়ার দলের কাজ নির্ধারণ ও তদারকি করা;
  • নির্মাণ সামগ্রীর (যেমনঃ রড, সিমেন্ট ও ইট) পান পরীক্ষা করা ও হিসাব রাখা;
  • নির্মাণ খরচের যাবতীয় হিসাব বানানো;
  • প্রজেক্ট ম্যানেজারের কাছে নিয়মিত রিপোর্ট দেয়া।

একজন কনস্ট্রাকশন ম্যানেজারের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক বা ব্যাচেলর ডিগ্রিকে সাধারণত প্রাথমিক যোগ্যতা হিসেবে ধরা হয়। তবে কাজ ও প্রতিষ্ঠানভেদে এ শর্ত ভিন্ন হতে পারে। যেমন, বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের ক্ষেত্রে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়াশোনা করা কাউকে নিয়োগ দেওয়া হয়।

অভিজ্ঞতাঃ অভিজ্ঞতার বিষয়টি পুরোপুরিই প্রতিষ্ঠান ও প্রজেক্টসাপেক্ষ। ছোট প্রতিষ্ঠান বা প্রজেক্টের ক্ষেত্রে ৫ – ১০ বছরের অভিজ্ঞতা আছে এমন ব্যক্তিদের খোঁজা হয়। বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর ক্ষেত্রে ১৫ – ২০ বছরের অভিজ্ঞতা চাওয়া হতে পারে। গড় হিসাবে সাধারণত ৫ – ১০ বছরের অভিজ্ঞতা থাকা জরুরি।

একজন কনস্ট্রাকশন ম্যানেজারের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • যোগাযোগের দক্ষতা
  • কর্মী ব্যবস্থাপনা
  • বাজেট ও সময় ব্যবস্থাপনা
  • নির্মাণ সামগ্রীর মান যাচাই করার দক্ষতা

টেকনিক্যাল জ্ঞানের ক্ষেত্রে আপনাকে কম্পিউটার মডেলিং ও ডিজাইন সফটওয়্যারে দক্ষ হওয়া জরুরি। যেমনঃ

  • AutoCAD
  • AutoCAD Civil 3D

পাশাপাশি অবকাঠামোগত নির্মাণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশে প্রযোজ্য সাধারণ নিয়মকানুন সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকা দরকার।

একজন কনস্ট্রাকশন ম্যানেজারের মাসিক আয় কেমন?

প্রতিষ্ঠান ও কাজের ভিত্তিতে এ পেশায় বেতন দেয়া হয়। যেমন, ছোট আকারের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানে কাজ করলে গড়ে ৳৪০,০০০ – ৳৫০,০০০ আয় হতে পারে। আবার বড় প্রতিষ্ঠান ও প্রজেক্টের ক্ষেত্রে গড়ে ৳৮০,০০০ থেকে শুরু করে লক্ষ টাকা পর্যন্ত উপার্জন করা সম্ভব।

একজন কনস্ট্রাকশন ম্যানেজারের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

এন্ট্রি লেভেলে একজন ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে ক্যারিয়ার শুরুর সম্ভাবনা বেশি। যেমন, রিয়েল এস্টেটের বেলায় সিভিল ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে আপনাকে কয়েক বছর কাজ করতে হবে। এরপর সহকারী কনস্ট্রাকশন বা সাইট ম্যানেজার পদে ১ – ২ বছরের জন্য নিযুক্ত হতে পারেন। পরবর্তীতে পদোন্নতি পেয়ে কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার বা সরাসরি প্রজেক্ট ম্যানেজার পদ পাওয়া সম্ভব।

ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে আপনি কোন প্রতিষ্ঠান বা প্রজেক্টের প্রধান প্রকৌশলীর পদ পেতে পারেন।

বিশেষ কৃতজ্ঞতা

হাসান ইমাম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, এপসিলন ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড, ১৯৯৭ – বর্তমান

Loading

One thought on “কনস্ট্রাকশন ম্যানেজার

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।