কপিরাইটার

কপিরাইটার: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

একজন কপিরাইটার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান, বিজ্ঞাপনী সংস্থা বা সংবাদপত্রের জন্য সৃজনশীল ও দৃষ্টি আকর্ষক লেখার মাধ্যমে কাস্টমারদের কাছে পণ্য বা সেবার মান, উপযোগিতা ও গ্রহণযোগ্যতা পৌছে দিতে সাহায্য করেন। এজন্য তিনি সহজ ভাষায় ছড়া, স্লোগান বা বিজ্ঞাপনের ভাষা লিখে দেন, যা পণ্য বা সার্ভিসের প্রচারে ব্যবহৃত হয়।

এক নজরে একজন কপিরাইটার

এক নজরে একজন কপিরাইটার

সাধারণ পদবী: কপিরাইটার
বিভাগ: মার্কেটিং ও বিজ্ঞাপন
প্রতিষ্ঠানের ধরন: বেসরকারি, প্রাইভেট ফার্ম/কোম্পানি, ফ্রিল্যান্সিং
ক্যারিয়ারের ধরন: পার্ট-টাইম, ফুল টাইম
লেভেল: এন্ট্রি, মিড
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য অভিজ্ঞতা সীমা: ০ – ২ বছর
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳২০,০০০ – কাজ, প্রতিষ্ঠান ও অভিজ্ঞতাসাপেক্ষ
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বয়স: কাজসাপেক্ষ
মূল স্কিল: ব্যবসায়িক ধারণা, ভাষাগত দক্ষতা, আকর্ষণীয়ভাবে লিখতে পারা, গবেষণা করার দক্ষতা
বিশেষ স্কিল: সৃজনশীল চিন্তা করার ক্ষমতা

একজন কপিরাইটার কোথায় কাজ করেন?

  • বড় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে, যেখানে মার্কেটিং ও বিজ্ঞাপনের জন্য আলদা বিভাগ রয়েছে;
  • বিজ্ঞাপনী সংস্থায়;
  • রেডিও, টেলিভিশন ও সংবাদপত্রের মার্কেটিং ও বিজ্ঞাপন বিভাগে;
  • বিশেষ ক্ষেত্রে সরকারের তথ্য বিভাগে।

একজন কপিরাইটার কী ধরনের কাজ করেন?

  • বিজ্ঞাপন লেখা;
  • টেলিভিশন বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে সীমিত সময় ও শব্দের মাধ্যমে পণ্য বা সার্ভিসকে কাস্টমারের কাছে তুলে ধরা;
  • ক্ষেত্র বিশেষে ভিডিওর স্ক্রিপ্ট লেখা;
  • অনলাইন বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে পণ্য বা সার্ভিস সংক্রান্ত কিওয়ার্ডের ভিত্তিতে বিজ্ঞাপনের ভাষা দাঁড় করানো।

একজন কপিরাইটারের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ যে কোন বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি।

বয়সঃ কাজ ও প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষে আলাদা হয়। সাধারণত ২০ বছর বয়স হলেই কাজ পাওয়া যায়।

অভিজ্ঞতাঃ কাজ ও প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষে আলাদা হয়। তবে ফুল টাইমের চাকরির ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতার প্রাধান্য দেয়া হয়।

একজন কপিরাইটারের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • বাংলায় লিখতে চাইলে বাংলা ভাষা ও ব্যাকরণের উপর ভালো জ্ঞান;
  • ইংরেজিতে লিখতে চাইলে ইংরেজি ভাষা ও ব্যাকরণের উপর ভালো জ্ঞান;
  • কোন বিষয় নিয়ে গবেষণা করার দক্ষতা;
  • সহজেই বোঝা যায়, এমনভাবে লেখার ক্ষমতা;
  • লেখার ভেতর বৈচিত্র্য নিয়ে আসতে পারা;
  • ঠিক বানানে দ্রুত লেখার অভ্যাস;
  • স্বল্প ভাষায় পরিষ্কারভাবে বক্তব্য তুলে ধরতে পারা;
  • অভিনব উপায়ে কোন ধারণাকে ফুটিয়ে তোলার দক্ষতা;
  • প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সার্ভিসের বিষয়ে খুব ভালো ধারণা;
  • যাদের জন্য বিজ্ঞাপন লেখা হচ্ছে, তাদের চিন্তাভাবনা, মূল্যবোধ ও জীবনযাত্রা সম্পর্কে ভালোভাবে জানা;
  • বাজারের চাহিদা সম্পর্কে জ্ঞান থাকা।

কোথায় শিখবেন কপিরাইটিং?

প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে যেকোন বিষয়ের গ্র্যাজুয়েট হিসেবে আপনি কপিরাইটিং শিখতে পারেন। সে জন্য কোন প্রতিষ্ঠানে শিক্ষানবিশ হিসেবে কাজ করতে পারলে সেখানে থেকে ভালো ধারণা পাবেন। তাছাড়া বেশ কিছু বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রতিষ্ঠানে ক্রিয়েটিভ রাইটিংয়ের উপর শর্ট কোর্স বা ডিপ্লোমা ডিগ্রি নিতে পারেন।

একজন কপিরাইটারের মাসিক আয় কেমন?

সৃষ্টিশীল এ পেশেয়া ভালো উপার্জনের সুযোগ রয়েছে। কিন্তু সে জন্য আপনার লেখার মান ও পণ্য প্রচারের দক্ষতা থাকা জরুরি। বাংলাদেশে একজন কপিরাইটার ভালো বিজ্ঞাপনী সংস্থায় কাজের সুযোগ পেলে মাসে গড়ে ৳২০,০০০ বেতনে কাজ শুরু করতে পারেন।

উল্লেখ্য যে, ফ্রিল্যান্সিং করা বহু কপিরাইটার মাসে লক্ষাধিক টাকা পর্যন্ত আয় করে থাকেন। তবে এর জন্য ভালো পোর্টফোলিও থাকার বিকল্প নেই।

একজন কপিরাইটারের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

জুনিয়ার কপিরাইটার হিসেবে আপনি ক্যারিয়ার শুরু করলেও ধীরে ধীরে বড় প্রজেক্টে কাজ করার অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারলে সিনিয়র কপিরাইটার হওয়ার সুযোগ আছে। বড় এজেন্সিতে পরবর্তীতে পদোন্নতি সাপেক্ষে টিম লিডার হওয়া সম্ভব।

অনেক অভিজ্ঞ কপিরাইটার কাজের অভিজ্ঞতা ও সুনাম অর্জন করতে পারলে কোন প্রতিষ্ঠানের আওতায় চাকরি না করে নিজে ফ্রি্ল্যান্সিং করেও ভালো অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।