আপনার ক্যারিয়ারে মেন্টরের প্রয়োজনীয়তা

আপনার ক্যারিয়ারে মেন্টরের প্রয়োজনীয়তা - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

ক্যারিয়ারে সফলতা পেতে ভালো পরিকল্পনা, জ্ঞান, দক্ষতা ও যোগ্যতা থাকা দরকার। কিন্তু ঠিক কোথা থেকে এ প্রস্তুতি শুরু করা যায়, সে ধারণা পাবার জন্য আপনার প্রয়োজন সঠিক পরামর্শ। এ ব্যাপারে আপনাকে সাহায্য করতে পারেন একজন মেন্টর। ক্যারিয়ারে মেন্টরের প্রয়োজনীয়তা কী, সে ব্যাপারে জানুন এবারের লেখা থেকে।

একজন মেন্টর কে?

একজন মেন্টর (Mentor) হলেন অভিজ্ঞ ও বিশ্বস্ত কোন প্রফেশনাল যিনি আপনাকে পেশাগত ব্যাপারে নির্ভরযোগ্য পরামর্শ দেন। যেমন, আপনি হয়তো ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে ক্যারিয়ার গড়তে চান। সেক্ষেত্রে অভিজ্ঞ একজন মার্কেটিং প্রফেশনাল আপনার মেন্টর হতে পারেন।

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: ব্যক্তিগত ব্যাপারেও বহু মেন্টরের সহযোগিতা পাওয়া সম্ভব। তবে এবারের লেখায় শুধু ক্যারিয়ার মেন্টরের উপর গুরুত্ব দিচ্ছি আমরা।)

আরেকটি ব্যাপার। কারো কাছ থেকে মেন্টরিং নিলে আপনি হবে তাঁর মেন্টি (Mentee)।

একজন মেন্টরের মাধ্যমে কীভাবে উপকৃত হবেন?

একজন মেন্টর থাকার সুবিধা অনেক। যেমন:

ইন্ডাস্ট্রি সংক্রান্ত জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা: একজন মেন্টর একটি নির্দিষ্ট ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করার কারণে সে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজের ধরন, সুযোগ-সুবিধা ও চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে বাস্তব জ্ঞান রাখেন। তাঁর অভিজ্ঞতা থেকে আপনি এমন সব তথ্য পেতে পারেন, যা অন্য কোন জায়গা থেকে সংগ্রহ করা কঠিন।

জ্ঞান, দক্ষতা ও যোগ্যতার মূল্যায়ন: আপনার পছন্দের ইন্ডাস্ট্রিতে যেতে হলে কী ধরনের জ্ঞান, দক্ষতা ও যোগ্যতা থাকা প্রয়োজন, সে ব্যাপারে একজন মেন্টর আপনাকে পূর্ণাঙ্গ ধারণা দিতে সক্ষম। এ ক্ষেত্রে আপনার কোন ঘাটতি থাকলে তার মূল্যায়নও মেন্টর করে দিতে পারেন। তাঁর দেয়া ফিডব্যাকের ভিত্তিতে আপনি নিজেকে প্রস্তুত করতে পারেন পছন্দের ক্যারিয়ার ও ইন্ডাস্ট্রির জন্য।

নেটওয়ার্কিং: একজন মেন্টরের কাছ থেকে পরামর্শ নেবার সুবাদে তাঁর সাথে আপনার এক ধরনের পেশাদার সম্পর্ক তৈরি হবে। তিনি আপনাকে ইন্ডাস্ট্রির অন্য প্রফেশনালদের সাথেও পরিচিত হবার সুযোগ করে দিতে পারেন। এর ফলে পেশাগত সহযোগিতা পাবার ক্ষেত্র বড় হবে আপনার, যা ক্যারিয়ারের উন্নয়নে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

কীভাবে একজন মেন্টর নির্বাচন করবেন?

আপনার ব্যক্তিগত জীবনে হয়তো উপদেশ আর পরামর্শ দেবার মতো মানুষ অনেক পেয়েছেন। কিন্তু পেশাগত ব্যাপারে তাদের সবাই আপনাকে সাহায্য দেবার মতো জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা রাখেন না। তাই এমন কাউকে মেন্টর হিসাবে রাখুন, যিনি –

  • আপনার পছন্দের ইন্ডাস্ট্রিতে/ক্যারিয়ারে কাজ করছেন;
  • আপনার ক্যারিয়ার সংক্রান্ত সমস্যা জানার ব্যাপারে মনোযোগী;
  • ধৈর্য ও বিচক্ষণতার সাথে আপনার জ্ঞান, দক্ষতা ও যোগ্যতার মূল্যায়ন করতে পারেন;
  • গঠনমূলক ফিডব্যাক দেবার মাধ্যমে আপনার অগ্রগতিতে সাহায্য করেন;
  • ফাঁকা বুলি দিয়ে আপনাকে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী করে তোলা থেকে বিরত থাকেন;
  • আপনাকে ক্যারিয়ারের ব্যাপারে বাস্তববাদী হতে শেখান।

আপনার সফল ক্যারিয়ার গঠনে একজন মেন্টর দীর্ঘমেয়াদী ভূমিকা পালন করতে পারেন। তাই এমন কারো কাছ থেকে নিয়মিত পরামর্শ নিন যিনি আন্তরিকভাবে আপনার সফলতা চান।

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।