ট্যুর গাইড

ক্যারিয়ার কন্টেন্ট - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

একজন ট্যুর গাইড অচেনা কোন জায়গা ভ্রমণ বা ঘোরার ক্ষেত্রে পর্যটকদের সাহায্য করে থাকেন। এজন্য তাকে সে জায়গা সম্পর্কে উল্লেখযোগ্য তথ্য খুব ভালোভাবে জানতে হয়। এ পেশায় দক্ষ হলে দেশ-বিদেশে কাজের যথেষ্ট সুযোগ পাওয়া সম্ভব।

CareerKi In Partnership With Access to Information (a2i) - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

এক নজরে একজন ট্যুর গাইড

সাধারণ পদবী: ট্যুর গাইড
বিভাগ: ট্যুরিজম
প্রতিষ্ঠানের ধরন: প্রাইভেট ফার্ম/কোম্পানি
ক্যারিয়ারের ধরন: পার্ট-টাইম, ফুল টাইম
লেভেল: প্রযোজ্য নয়
এন্ট্রি লেভেলে অভিজ্ঞতা সীমা: ০ – ২ বছর
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳১৫,০০০ – ৳২০,০০০
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বয়স সীমা: ১৯ – ৩৫ বছর
মূল স্কিল: ভ্রমণের আগ্রহ, ম্যাপ ব্যবহারে দক্ষতা, কম্পাসের ব্যবহার জানা
বিশেষ স্কিল: যোগাযোগের দক্ষতা, বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ

একজন ট্যুর গাইড কোথায় কাজ করেন?

  • হোটেল
  • পার্ক
  • মিউজিয়াম
  • দর্শনীয় স্থান

একজন ট্যুর গাইড কী ধরনের কাজ করেন?

  • পর্যটকদের জায়গা ঘুরানো;
  • কোন জায়গা সম্পর্কে পর্যটকদের প্রশ্নের উত্তর দেয়া;
  • পর্যটকদের সুবিধা-অসুবিধার দিকে খেয়াল রাখা।

একজন ট্যুর গাইডের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

শিক্ষাগত যোগ্যতা: হাই স্কুল/কলেজ পাশ।

বয়স: সাধারণত ১৯ – ৩৫ বছর হতে হবে আপনাকে।

অভিজ্ঞতা: সাধারণত ১ – ২ বছরের অভিজ্ঞতা কাজে আসে। তবে বিশেষ কোন বাধ্যবাধকতা থাকে না।

একজন ট্যুর গাইডের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • কোন জায়গা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য জানা ও মনে রাখতে পারা;
  • যোগাযোগের দক্ষতা;
  • ধৈর্য;
  • মানসিক চাপ সামলানোর ক্ষমতা;
  • যেকোন পরিস্থিতি সামাল দিতে পারা।

উল্লেখ্য যে, ইংরেজি ভাষায় পারদর্শিতা থাকলে আপনি ভালো জায়গায় কাজ করার সুযোগ পাবেন, বিশেষ করে যেসব জায়গায় বিদেশী পর্যটকদের আনাগোনা রয়েছে।

যে জায়গায় কাজ করবেন সেখানকার আঞ্চলিক ভাষা জানা থাকলে কাজ করতে সুবিধা হবে আপনার।

ট্যুর গাইডের কাজ শিখবেন কোথায়?

ট্যুর গাইড হতে হলে সার্টিফিকেট কোর্সে অংশগ্রহণ করা বাধ্যতামূলক নয়। তবে পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সার্টিফিকেট কোর্সগুলো আপনাকে কাজ পেতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি আপনার জানার পরিধিও বাড়াতে পারবেন এগুলোর মাধ্যমে।

একজন ট্যুর গাইডের মাসিক আয় কেমন?

সাধারণত কোন প্রতিষ্ঠানের হয়ে কাজ করলে মাসে গড়ে ৳১৫,০০০ – ৳২০,০০০ আয় করা সম্ভব। অনেকে স্বাধীনভাবে ট্যুর গাইডের কাজ করেন। এক্ষেত্রে আপনি যত বেশি পর্যটকের সাথে কাজ করতে পারবেন, আয় তত বেশি হবে।

একজন ট্যুর গাইডের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

ট্যুর গাইডের পেশায় নির্দিষ্ট কোন পদোন্নতি নেই। হোটেল আর ট্রাভেল এজেন্সিগুলোতে কাজ করলে পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে অন্য কোন পদে নিয়োগ পেতে পারেন। তবে এর কোন নিশ্চয়তা নেই।

Loading

2 thoughts on “ট্যুর গাইড

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।