ট্রাভেল এজেন্ট

ট্রাভেল এজেন্ট: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

একজন ট্রাভেল এজেন্ট ভ্রমণ বিষয়ে কাস্টমারকে প্রয়োজনীয় তথ্য দেয়া থেকে শুরু করে রিজার্ভেশন আর ভিসার ব্যবস্থা করেন। চ্যালেঞ্জিং এ পেশায় সফলতা পেতে হলে আপনাকে সেলসে দক্ষ হতে হবে।

এক নজরে একজন ট্রাভেল এজেন্ট

সাধারণ পদবী: ট্রাভেল এজেন্ট, রিজার্ভেশন অফিসার, হলিডে এক্সিকিউটিভ
বিভাগ: হসপিটালিটি, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ট্যুরিজম
প্রতিষ্ঠানের ধরন: প্রাইভেট ফার্ম/কোম্পানি
ক্যারিয়ারের ধরন: ফুল টাইম
লেভেল: এন্ট্রি
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য অভিজ্ঞতা সীমা: ০ – ১ বছর
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳১০,০০০ – ৳১২,০০০ (সাথে রয়েছে সেলস কমিশন)
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বয়সসীমা: ২২ – ৩০ বছর
মূল স্কিল: রিজার্ভেশন সফটওয়্যার ব্যবহারের দক্ষতা, ভিসা ও ইমিগ্রেশন সম্পর্কিত ধারণা, সেলসের দক্ষতা
বিশেষ স্কিল: যোগাযোগের দক্ষতা, ধৈর্য

একজন ট্রাভেল এজেন্ট কোথায় কাজ করেন?

  • ট্রাভেল এজেন্সি
  • হজ্ব ও ওমরাহ্‌ এজেন্সি

একজন ট্রাভেল এজেন্ট কী ধরনের কাজ করেন?

  • কাস্টমারের সময় ও বাজেট অনুযায়ী ভ্রমণের গন্তব্য ও ট্যুর প্যাকেজ সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য দেয়া;
  • ভ্রমণের টিকেট ইস্যু করা;
  • হোটেল বুকিং দেয়া;
  • কাস্টমারের প্রয়োজনে টিকেট বা হোটেল বুকিংয়ে পরিবর্তন আনা কিংবা বাতিল করা;
  • টিকেট ইস্যু ও হোটেল বুকিং সংক্রান্ত ডকুমেন্ট সংরক্ষণ করা;
  • কাস্টমারের প্রয়োজনে ভিসা সম্পর্কিত ব্যাপারে সাহায্য করা;
  • সার্ভিসের জন্য কাস্টমারের কাছ থেকে সময়মতো অর্থ বুঝে নেয়া;
  • কাস্টমারের কোন অভিযোগ থাকলে তার সমাধানে উদ্যোগ নেয়া;
  • বিভিন্ন এয়ারলাইনস কোম্পানি ও হোটেলের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখা;
  • দৈনিক, সাপ্তাহিক ও মাসিক সেলস রিপোর্ট তৈরি করা।

একজন ট্রাভেল এজেন্টের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ সাধারণত ন্যূনতম স্নাতক পাশ হতে হয়। কিছু ক্ষেত্রে বিবিএ ডিগ্রিধারীদের প্রাধান্য দেয়া হয়।

ট্রাভেল ও ট্যুর ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কিত কোন সার্টিফিকেট বা ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশন (IATA) স্বীকৃত কোন ইন্সটিটিউট থেকে ফেয়ারস অ্যান্ড টিকেটিংয়ের উপর ডিপ্লোমা ডিগ্রি থাকলে অগ্রাধিকার পাবেন।

একজন ট্রাভেল এজেন্টের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • রিজার্ভেশন সফটওয়্যার (যেমন, Travelport, Amadeus ও SABRE) ব্যবহারে দক্ষতা;
  • এয়ারলাইনস টিকেট বুকিং ও হোটেল রিজার্ভেশনের নিয়ম সম্পর্কিত জ্ঞান;
  • বিভিন্ন দেশের ইমিগ্রেশন আইন সম্পর্কিত ধারণা;
  • ইংরেজি ভাষায় দক্ষভাবে যোগাযোগ করতে পারা;
  • সেলসের দক্ষতা;
  • ভ্রমণের গন্তব্য ও ট্যুর প্যাকেজ সম্পর্কিত ধারণা;
  • বিভিন্ন ধরনের ক্লায়েন্টকে সহযোগিতা করার মানসিকতা ও ধৈর্য।

কোথায় পড়বেন ট্রাভেল এজেন্ট হবার জন্য?

একজন ট্রাভেল এজেন্টের মাসিক আয় কেমন?

যেকোন ট্রাভেল এজেন্সিতে স্থায়ীভাবে নিয়োগ পেতে হলে প্রয়োজন অভিজ্ঞতা। এজন্য ইন্টার্নশিপের দরকার হয়। এ সময় মাসিক ৳৫,০০০ – ৳৭,০০০ পাবেন।

ইন্টার্নশিপ শেষে ৳১০,০০০ – ৳১২,০০০ বেতনে ট্রাভেল এজেন্সিত কাজ করতে পারবেন।

কয়েক বছরের অভিজ্ঞতা থাকলে মাসিক বেতন ৳২০,০০০ – ৳৪০,০০০ হয়।

উল্লেখ্য যে, একজন ট্রাভেল এজেন্ট সেলসের ভিত্তিতে কমিশন পান। অনেক ক্ষেত্রে এ কমিশন মূল বেতনের দেড় থেকে দ্বিগুণ হয়।

একজন ট্রাভেল এজেন্টের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

এন্ট্রি লেভেলে একজন এজেন্ট হিসাবে আপনার ক্যারিয়ার শুরু হবে। সেলসে দক্ষ হয়ে থাকলে ৩ – ৫ বছরের মধ্যে ট্রাভেল এজেন্সির অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার হতে পারবেন।

বড় এজেন্সিতে কাজ করলে সাধারণত আপনার পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ ব্রাঞ্চগুলোতে নিয়োগ দেয়া হতে পারে।

এ পেশায় সর্বোচ্চ পদ হতে পারে পুরো এজেন্সির সেলস ডিপার্টমেন্টের প্রধান।

বিশেষ কৃতজ্ঞতা

আব্দুল্লাহ আল মামুন, রিজার্ভেশন অফিসার, ইউনাইটেড কনসালট্যান্সি অ্যান্ড ট্যুরস

কেন নেবেন ক্যারিয়ার টেস্ট?

  • সরাসরি ইন্টারভিউর কল পেতে
  • সরাসরি চাকরির পরীক্ষা দিতে
  • চাকরি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে
  • চাকরির জন্য দরকারি স্কিল অর্জন করতে
ক্যারিয়ার টেস্টে যান

One thought on “ট্রাভেল এজেন্ট

  1. i am so excited to got a job. I am a student of tourism and hospitality managment. If you acpect my request, you will contact me.

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।