প্রোডাক্ট ম্যানেজার ও প্রজেক্ট ম্যানেজারের মধ্যে পার্থক্য কী?

ক্যারিয়ার কন্টেন্ট - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

এ দুইটি পদ প্রায় একই রকম শোনায়। এমনকি অনেক সময় সমার্থক শব্দ হিসাবেও এদেরকে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু প্রোডাক্ট ম্যানেজার ও প্রজেক্ট ম্যানেজারের মধ্যে পার্থক্য নির্ধারণ করা জরুরি। এর কারণ হলো, এদের কাজের ক্ষেত্র বেশ আলাদা। একজন প্রোডাক্ট ম্যানেজারের কাজের ব্যাপ্তি প্রোডাক্টের আইডিয়া পর্যায় থেকে শুরু করে একেবারে বাজারজাত করা পর্যন্ত হয়। অন্যদিকে প্রজেক্ট ম্যানেজার মূল কাজ হচ্ছে নির্ভুলভাবে সময়মতো নির্দিষ্ট বাজেটের ভেতর নির্ধারিত কাজ শেষ করা।

প্রোডাক্ট ও প্রজেক্টের মধ্যে পার্থক্য

সবার আগে প্রোডাক্ট আর প্রজেক্টের মধ্যেকার পার্থক্য বোঝা যাক।

প্রোডাক্ট হলো কাস্টমারদের নির্দিষ্ট কোন সমস্যার নির্দিষ্ট কোন সমাধান। এটা হতে পারে ধরা ছোঁয়া যায় এমন কোন জিনিস। যেমন: খাওয়ার চিপস। আবার এটি হতে পারে কোন অ্যাপ বা সফটওয়্যার কিংবা কোন সার্ভিস। যেমন, রাইড শেয়ারিং সার্ভিস পাঠাও একটি প্রোডাক্ট।

প্রজেক্ট হলো এক ধরনের পরিকল্পিত কার্যক্রম। এর বিভিন্ন ধাপের জন্য নির্দিষ্ট সময় ও বাজেট বরাদ্দ থাকে। এর ফলাফলও নির্ধারণ করা হয় আগে থেকে। সে ফলাফল অর্জন করার পর এর সমাপ্তি ঘটে। যেমন, একটি ডাটাসেন্টার তৈরির প্রজেক্ট। ডাটাসেন্টারটি তৈরি হবার পর প্রজেক্টের কাজ শেষ হয়।

প্রোডাক্ট আর প্রজেক্টের মধ্যে মূল পার্থক্য আরেকভাবে ব্যাখ্যা করা যায়। ব্যবহারকারীদের প্রয়োজনের সাথে ও প্রতিযোগিতায় অন্যদের চেয়ে ভালো করার জন্য প্রোডাক্টের মধ্যে নিয়মিত পরিবর্তন আনা খুব স্বাভাবিক। যেমন, আপনার মোবাইল ফোনের অ্যাপগুলোতে কয়েক মাস পরপর নতুন আপডেট নিয়ে আসা হয়। অন্যদিকে প্রজেক্টের ফলাফল একদম সুনির্দিষ্ট । অর্থাৎ বড় ধরনের কোন প্রয়োজন দেখা না দিলে প্রজেক্টে কোন পরিবর্তন আনা হয় না। যেমন, নির্দিষ্ট পরিকল্পনার ভিত্তিতে একটি অ্যাকাউন্টিং সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্টের প্রজেক্ট চূড়ান্ত করা হয়। ব্যবহারকারীদের প্রয়োজনে হয়তো একজন প্রোডাক্ট ম্যানেজার সফটওয়্যারের ডিজাইনে পরিবর্তন আনতে পারেন। কিন্তু প্রজেক্টটির চূড়ান্ত ফলাফল অপরিবর্তিত থেকে যায় – একটি অ্যাকাউন্টিং সফটওয়্যার।

প্রোডাক্ট ম্যানেজার ও প্রজেক্ট ম্যানেজারের মধ্যে পার্থক্য

প্রোডাক্ট ম্যানেজারের কাজ কী?

যতদিন কোন প্রোডাক্ট বাজারে আছে, ততদিন তার দায়িত্ব প্রোডাক্ট ম্যানেজারের। এ জন্য অনেক সময় প্রোডাক্ট ম্যানেজারকে প্রোডাক্টের সিইও (CEO) বলা হয়ে থাকে।

প্রোডাক্ট ম্যানেজারের মূল দায়িত্ব হচ্ছে প্রোডাক্টের ভ্যালু যথাসম্ভব বাড়ানো। এজন্য তাকে একজন প্রোডাক্ট ব্যবহারকারীর সমস্যা সম্পর্কে জানতে হয়। এর ভিত্তিতে তৈরি হয় প্রোডাক্টের প্রাথমিক ভার্সন, যা এমভিপি (Minimally Viable Product) নামে পরিচিত।

একজন প্রোডাক্ট ম্যানেজার ডিজাইন টিমের সাথে বসে ইউজার এক্সপেরিয়েন্স (User Experience) দাঁড় করান। এরপর সে ডিজাইন অনুযায়ী ইঞ্জিনিয়ারদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন প্রোডাক্ট তৈরির জন্য। এর বাইরে কাস্টমার সার্ভিস টিমের সাহায্যে তাকে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করতে হয় প্রোডাক্টের বাজারে গ্রহণযোগ্যতা সম্পর্কে তথ্য নিতে।

একজন ভালো প্রোডাক্ট ম্যানেজার সবসময় তার প্রোডাক্টের ব্যবহার বৃদ্ধির জন্য কাজ করেন। প্রয়োজনে সময়মতো প্রোডাক্টের অপ্রয়োজনীয় অংশ খুঁজে বের করে ফেলে দেয়ার সিদ্ধান্তও নিতে হয় তাকে।

প্রজেক্ট ম্যানেজারের কাজ কী?

যেখানে প্রোডাক্ট ম্যানেজারের লক্ষ্য কাস্টমারের কোন বিশেষ সমস্যার সমাধান করা, সেখানে একজন প্রজেক্ট ম্যানেজার কাজ করেন আরো সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে। তার কাজ প্রতিষ্ঠানের অর্থ ও অন্যান্য সম্পদের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করা, যা নির্দিষ্ট বাজেটের মধ্যে সবচেয়ে কম ঝুঁকি নিয়ে সময়মতো পরিকল্পিত ফলাফল অর্জনে সাহায্য করবে।

নির্ধারিত ফলাফল অর্জনের উদ্দেশ্যে একজন প্রজেক্ট ম্যানেজার প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন বিভাগের সাথে সমন্বয় ঘটান ও প্রয়োজন অনুযায়ী কাজ ভাগ করে দেন। বিশেষ করে বড় আকারের উদ্যোগে দক্ষ প্রজেক্ট ম্যানেজারের গুরুত্ব অনেক।

বহু ক্ষেত্রে প্রোডাক্ট ও প্রজেক্ট ম্যানেজারের কাজ একই রকম হয়। তাদের প্রয়োজনীয় দক্ষতাগুলোতেও বেশ মিল রয়েছে। তাই ছোট প্রতিষ্ঠান বা স্টার্টআপের শুরুর দিকে একজন মানুষ দুই ধরনের দায়িত্ব পালন করেন। কিন্তু বড় মাপের কাজে এটি সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে একে অপরের পরিপূরক হিসাবে ভূমিকা রাখেন।

Loading

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।