প্লাস্টিক সার্জন

ক্যারিয়ার কন্টেন্ট - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

প্লাস্টিক সার্জারি নামটা এসেছে প্রাচীন গ্রিক শব্দ প্লাস্টিকস থেকে এর অর্থ আকার ও আকৃতির পরিবর্তন আনা জন্মগত বিকৃতি, আঘাত বা পোড়া অংশকে স্বাভাবিক অবস্থানে ফিরিয়ে আনাই প্লাস্টিক সার্জন এর প্রধান কাজ।   

সাধারণ পদবীঃ বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক/রিকন্সট্রাকশন/কসমেটিক সার্জন

বিভাগঃ স্বাস্থ্য ও সেবা

প্রতিষ্ঠানের ধরনঃ  সরকারী-বেসরকারী হাসপাতাল, বিশেষায়িত হাসপাতাল

ক্যারিয়ারের ধরনঃ পার্ট-টাইম, ফুল টাইম

লেভেলঃ মিড

অভিজ্ঞতা সীমাঃ অন্তত ৫/৬ বছর হাসপাতালে কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে

সম্ভাব্য বেতন সীমাঃ  সরকারি চাকুরিতে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে গ্রেড-৬ অনুযায়ী বেতন ৩৭-৬৭ হাজার টাকা হয়ে থাকে এছাড়া প্রাইভেট প্র্যাকটিস এবং বেসরকারি হাসপাতালে কাজ করেও অনেক উপার্জন সম্ভব। প্রত্যেক অপারেশন বাবদ ফি ২০০০০-৩০০০০০ টাকা হয়ে থাকে    

সম্ভাব্য বয়স সীমাঃ নির্দিষ্ট বয়স-সীমা নেই

মূল স্কিলঃ  সার্জারিতে দক্ষ হতে হবে, ট্রমা রিকন্সট্রাকশন সম্পর্কে জ্ঞান রাখতে হবে

বিশেষ স্কিলঃ  বটক্স, পিলার, পিআরপি, লেজার, ম্যাস্টোপেক্সিসহ অন্যান্য আধুনিক পদ্ধতিতে চিকিৎসায় দক্ষ হতে হবে

একজন প্লাস্টিক সার্জন কোন ধরনের প্রতিষ্ঠান বা শিল্পে কাজ করেন?

সরকারি/বেসরকারি হাসপাতালে একজন প্লাস্টিক সার্জন কাজ করে থাকেন। তবে যেসকল হাসপাতাল বার্ন  রিকভারি ও ট্রমা রিকন্সট্রাকশন মূলক সেবা প্রদান করে থাকে সেখানে প্লাস্টিক সার্জন এর কাজের ক্ষেত্র সবথেকে বেশি   

একজন প্লাস্টিক সার্জন কী ধরনের কাজ করেন?

  •         জন্মগত ত্রুটি- কাটাঠোঁট, কাটাতালু, বাড়তি আঙুল, জোড়া আঙুল, মুখমণ্ডলের বিভিন্ন জন্মগত ত্রুটি সার্জারির মাধ্যমে নিরাময় করেন
  •         আঘাতজনিত রোগ- দুর্ঘটনা বা আঘাতের পর শরীরের যেকোনো স্থানের পুনর্গঠন
  •         ক্যান্সার বা টিউমার অপসারণের পর সেই স্থানের পুনর্গঠন
  •         বেডসোরের চিকিৎসা করেন
  •         আগুনে পুড়ে যাওয়া রোগীর চিকিৎসা করেন
  •         কসমেটিক সার্জারি বা সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য সার্জারি করেন

একজন প্লাস্টিক সার্জনের শিক্ষাগত যোগ্যতা কী?

প্লাস্টিক সার্জন হতে চাইলে এমবিবিএস পাশের পর প্লাস্টিক সার্জারি এর ওপর এফসিপিএস/এফআরসিএস/এমএস/এমডি/পিএইচডি ডিগ্রী নিতে হবে

একজন প্লাস্টিক সার্জনের কী কী দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  •         প্র্যাক্টিকাল স্কিল যেমন, হাত-চোখের সমন্বয়। ভাল কোঅর্ডিনেশন এবং ভিজুয়ো-স্পেশাল অ্যাওয়ারনেস
  •         চমৎকার দৃষ্টিশক্তি।
  •         ভাল অর্গানাইজেশনাল এবং কমিউনিকেশন স্কিল।
  •         একটি টিমকে লিড ও ম্যানেজ করার সক্ষমতা।
  •         ডাইনামিক রোল প্লে করার সামর্থ্য ও স্ট্যামিনা।
  •         রোগীকে ও অন্যান্য স্টাফদের অনুপ্রেরণা দেয়ার সক্ষমতা।

কোথায় পড়াশোনা করবেন প্লাস্টিক সার্জন হতে চাইলে?

ঢাকা মেডিকেল কলেজের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি থেকে প্লাস্টিক সার্জারিতে এমএস ডিগ্রি দেওয়া হয় যা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়(BSMMU) এর অধীন। এছাড়া বাংলাদেশ কলেজ অফ ফিজিশিয়ানস এন্ড সার্জনস(BCPS) থেকে প্লাস্টিক অ্যান্ড রিকন্সট্রাক্টিভ সার্জারিতে এফসিপিএস ডিগ্রি দেওয়া হয়

একজন প্লাস্টিক সার্জন এর কাজের ক্ষেত্র ও সুযোগ কেমন?

বাংলাদেশে মাত্র ৭ টি সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট রয়েছে প্লাস্টিক সার্জনের সংখ্যাও অপ্রতুল ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের সন্নিকটে ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটের নির্মাণ কাজ চলছে যা এশিয়া মহাদেশের অন্যতম বৃহত্তম বার্ন ইউনিট এ হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শেষ হলে বাংলাদেশের প্লাস্টিক সার্জনদের কর্মক্ষেত্র বহুলাংশে বৃদ্ধি পাবে

সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি বাংলাদেশ মেডিকেল হাসপাতাল, অ্যাপোলো হাসপাতাল, ইউনাইটেড হাসপাতালের মতো আরো কিছু মানসম্মত বেসরকারি হাসপাতালে প্লাস্টিক সার্জনের কাজের সুযোগ আছে। বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা যেমন সেইভ দ্যা চিলড্রেন শিশুদের জন্মগত ঠোঁট কাটা রোগের চিকিৎসা করে থাকেএ সকল সংস্থায় প্লাস্টিক সার্জনের কাজের সুযোগ রয়েছে। এর পাশাপাশি ব্যক্তিগত ক্লিনিকে কসমেটিক সার্জারি চর্চা করবার সুযোগ আছে।

একজন প্লাস্টিক সার্জনের মাসিক আয় কেমন?

সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত একজন প্লাস্টিক সার্জন অধ্যাপক হিসেবে গ্রেড-৩, সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে গ্রেড-৪ ও সহকারী অধ্যাপক হিসেবে গ্রেড- ৬ এর বেতন পান

এছাড়া এই পেশায় আয়ের সুযোগ সব থেকে বেশি সার্জিকাল বিউটিফিকেশন বিভাগেঅপারেশন ভেদে ২০ হাজার থেকে ৩ লাখ টাকা পর্যন্ত আয় করা সম্ভব।  বেসরকারি হাসপাতাল ও সংস্থায় বেতন লক্ষ্যাধিক হয়ে থাকে।

ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে একজন প্লাস্টিক সার্জনের ?  

চাহিদার তুলনায় বাংলাদেশে দক্ষ প্লাস্টিক সার্জনের পরিমান কম। এছাড়া অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়নের সাথে সাথে কসমেটিক সার্জারি বা সার্জিকাল বিউটিফিকেশন এর পরিমান দিন দিন বাড়ছে। সরকারি মেডিকেল কলেজ  হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ডপ্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে সহকারী অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক এবং অধ্যাপক হবার সুযোগ আছে।

এই পেশায় ক্যারিয়ার নিশ্চিত করতে চাইলে প্রয়োজন দক্ষতা ও অভিজ্ঞতারএছাড়া বিভিন্ন আন্তর্জাতিক কনফারেন্স ও ট্রেনিং প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করে সর্বদা নতুন চিকিৎসা পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে হবে। বাংলাদেশে বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইউনিট স্থাপনের অগ্রদুত হয়ে আছেন ডাঃ সামন্ত লাল সেন। বাংলাদেশে চাহিদার তুলনায় প্লাস্টিক সার্জনের সংখ্যা কম হওয়াতে অধ্যাবসায়, দক্ষতা এবং পরিশ্রমের দ্বারা যে কেউ এ পেশায় সাফল্যের শীর্ষে পৌছাতে পারবে।

 

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।