বিসিএস পুলিশ: সহকারী পুলিশ সুপার

বিসিএস - পুলিশ ক্যাডার: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

আইন বাস্তবায়নের জন্য বাংলাদেশ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রতিষ্ঠান হল পুলিশ প্রশাসন। আপনি যদি বাংলাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই ক্যাডারে নিয়োগ পেতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে পুলিশ ক্যাডারে নিয়োগের জন্য আপনার যোগ্যতা প্রমাণ করতে হবে। কিছু ক্ষেত্রে নিয়োগের জন্য হয়তো অনেকে পুলিশ ক্যাডারকে প্রথম পছন্দ দিয়ে থাকেন তবে সাধারণত সে ধরনের মানুষের সংখ্যা কম। তবে বিসিএস ক্যাডারে চাকরিপ্রার্থী সকলেই সাধারণত তাদের পছন্দের তালিকায় পুলিশ ক্যাডারকে শীর্ষ পাঁচের মধ্যে রাখেন।

এক নজরে একজন সহকারী পুলিশ সুপার

সাধারণ পদবী: সহকারী পুলিশ সুপার
বিভাগ: বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস
প্রতিষ্ঠানের ধরন: সরকারি
ক্যারিয়ারের ধরন: ফুল টাইম
লেভেল: এন্ট্রি
অভিজ্ঞতা সীমা: প্রযোজ্য নয়
বেতনসীমা: জাতীয় বেতন স্কেলের নবম গ্রেড অনুযায়ী মূল বেতন ২২ হাজার টাকা। কর্মস্থল অনুযায়ী বাড়ি ভাড়া ও অন্যান্য ভাতা মিলিয়ে মাসিক ৩৫-৩৭ হাজার টাকা
সম্ভাব্য বয়সসীমা: বিসিএস সার্কুলার যে মাসে দেওয়া হবে সে মাসের প্রথম দিন একজন প্রার্থীর বয়স ২১-৩০ এর মধ্যে হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধা সনদধারী ব্যক্তিদের সন্তান ও পৌত্র-পৌত্রীর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩২ বছর
মূল স্কিল: আইন-শৃঙ্খলা সম্পর্কিত জ্ঞান
বিশেষ স্কিল: বিচক্ষণতা, ধৈর্য, মানসিক চাপ সামলানোর ক্ষমতা, যোগাযোগের দক্ষতা

একজন সহকারী পুলিশ সুপার কোথায় কাজ করেন?

বাংলাদেশে পুলিশ প্রশাসনকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য বেশ কয়েকটি স্থান বা অঞ্চল নিয়ে কিছু সার্কেল নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়। পুলিশ সার্ভিসে যারা নিয়োগ পান তাদের প্রথমে নিয়োগ দেওয়া হয় সহকারী পুলিশ সুপার পদে। একজন সহকারী পুলিশ সুপারকে একটি সার্কেলের দায়িত্বে নিয়োজিত করা হয়। এছাড়াও পুলিশ সার্ভিসের বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে। পুলিশ প্রশাসনের বেশ কয়েকটি বিভাগের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল –

  • বিভিন্ন রেঞ্জে ভাগ করা সাধারণ পুলিশ বিভাগ;
  • মেট্রোপলিটন পুলিশ;
  • ট্রাফিক বিভাগ;
  • স্পেশাল সিকিউরিটি অ্যান্ড প্রটেকশন ব্যাটালিয়ন;
  • র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন;
  • আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন;
  • স্পেশাল ব্রাঞ্চ(SB);
  • ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট(CID);
  • রেলওয়ে পুলিশ;
  • হাইওয়ে পুলিশ;
  • পুলিশ হেডকোয়ার্টার;
  • পুলিশ প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান ও কেন্দ্রসমূহ;
  • ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ;
  • পুলিশ ইন্টেলিজেন্স অপারেশন্স(PIO);
  • পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন(PBI);
  • ট্যুরিস্ট পুলিশ।

একজন সহকারী পুলিশ সুপার কী ধরনের কাজ করেন?

পুলিশ সার্ভিসের চাকরির ক্ষেত্রে একটি থানার সামগ্রিক দায়িত্ব সাধারণত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার হাতে ন্যস্ত থাকে। আপনি যদি একজন সহকারী পুলিশ সুপার হন সেক্ষেত্রে আপনার দায়িত্ব হয় আপনার নির্দিষ্ট সার্কেলকেন্দ্রিক। একটি সার্কেলের আইন বাস্তবায়ন, অপরাধ দমন, অপরাধ প্রশমন ও আইনবহির্ভূত কার্যাবলি নিবারণের দায়িত্ব একজন সহকারী পুলিশ সুপারের উপর অর্পিত থাকে। এর পাশাপাশি একজন সহকারী পুলিশ সুপারকে তার অধীন কনস্টেবল, ইন্সপেকটর ও অন্যান্য কর্মচারীদের কাজ মনিটর করতে হয়। এছাড়াও প্রটোকলের দায়িত্বে একজন সহকারী পুলিশ সুপারকে নিযুক্ত করা হতে পারে।

একজন সহকারী পুলিশ সুপারের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

পুলিশ সার্ভিসে নিয়োগের ক্ষেত্রে আপনাকে প্রথমে নিম্নলিখিত ধাপগুলো পার করতে হবে –
১। বিসিএস প্রিলিমিনারী লিখিত পরীক্ষায়(২০০ নম্বরের পরীক্ষা) উত্তীর্ণ হতে হবে
২। এতে উত্তীর্ণ হলে বিসিএস লিখিত পরীক্ষার(৯০০ নম্বরের পরীক্ষা) জন্য বসতে হবে আপনাকে
৩। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে আপনি সরাসরি মৌখিক পরীক্ষার জন্য বিবেচ্য হিসেবে গণ্য হবেন। মৌখিক পরীক্ষায়(২০০ নম্বরের পরীক্ষা) যদি আপনি ভালো করতে পারেন সেক্ষেত্রে চূড়ান্ত ফলাফলে আপনার ক্যাডার পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায় এবং ফরেইন ক্যাডারে নিয়োগ পাওয়ার জন্য অবশ্যই আপনাকে মৌখিক পরীক্ষায় অসাধারণ ফলাফল করতে হবে।
৪। মৌখিক পরীক্ষার পরে চূড়ান্ত ফলাফলে কোন প্রার্থী কোন্‌ ক্যাডার পেয়েছেন অথবা নন-ক্যাডার চাকরির জন্য বিবেচ্য হবেন তা উল্লেখ করে দেওয়া হয়।

একজন সহকারী পুলিশ সুপারের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • সহকারী পুলিশ সুপারের কাজ সম্পাদনের ক্ষেত্রে বিচক্ষণ হওয়া জরুরি;
  • পুলিশ সার্ভিসের কাজ বেশ স্পর্শকাতর এবং এজন্য এ সার্ভিসের কাজের ক্ষেত্রে শান্ত মেজাজের হওয়া বেশ জরুরি;
  • আইন বাস্তবায়ন ও অপরাধ দমনের ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। নিরপরাধ কেউ যাতে ভোগান্তির শিকার না হয় তা নিশ্চিত করার সর্বোচ্চ চেষ্টা একজন সহকারী পুলিশ সুপারের থাকতে হবে;
  • ন্যায়বিচারের ধারণা বেশ পরিস্কার হওয়া জরুরি নইলে অপরাধ নিবারণ এবং প্রশমনের ক্ষেত্রে সার্কেলের অন্তর্ভুক্ত নাগরিকেরা নিরুৎসাহিত হতে পারেন;
  • অধীনস্থ কর্মচারীদের মনিটর করার ক্ষেত্রে কৌশলী হওয়ার ক্ষমতা থাকতে হবে।

একজন সহকারী পুলিশ সুপারের মাসিক আয় কেমন?

৯ম পে স্কেল অনুসারে একজন সহকারী পুলিশ সুপারের বেতন ২২,০০০ টাকা। এর পাশাপাশি সার্কেলভিত্তিক অর্পিত দায়িত্ব অথবা কাজের উপর নির্ভর করে একজন সহকারী পুলিশ সুপারের কিছু পরিমাণ মাসিক সম্মানী বরাদ্দ থাকতে পারে।

একজন সহকারী পুলিশ সুপারের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

একজন সহকারী পুলিশ সুপারের ক্যারিয়ার অগ্রসর হওয়ার ক্ষেত্রে সরকার নির্ধারিত পদবিন্যাস রয়েছে। আপনি যদি সহকারী পুলিশ সুপার হন সেক্ষেত্রে নির্ধারিত পদবিন্যাস অনুযায়ী আপনার ক্যারিয়ার অগ্রসর হবে যথাক্রমে নিম্নলিখিত তালিকা অনুসারে –
১। সহকারী পুলিশ সুপার
২। সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার
৩। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার
৪। পুলিশ সুপার
৫। অতিরিক্ত বিভাগীয় মহাপরিদর্শক
৬। বিভাগীয় মহাপরিদর্শক
৭। অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক
৮। মহাপরিদর্শক
পদবিন্যাস অনুযায়ী আপনি বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিসের যে কোন বিভাগে নিযুক্ত হতে পারেন।

Loading

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।