ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট

ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা বিষয়ে কাজ করেন যা ঐ প্রতিষ্ঠানের মুনাফাবৃদ্ধি ও মানোন্নয়নের জন্য অপরিহার্য। বর্তমানে বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানগুলো এবং ব্যাংকসমুহ প্রতিনিয়তই তাদের ব্যবসার প্রসার বৃদ্ধি ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা এবং উন্নত সেবা নিশ্চিতকরনের জন্য ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট নিয়োগ দিয়ে থাকেন তাই এপেশার ক্ষেত্র ও সুযোগ বেড়েই চলেছে। ব্যবসায়িক কৌশল নির্ধারন, সমকালীন বাজার ব্যবস্থাপনা, বিপনন প্রভৃতি বিষয়ে আগ্রহ থাকলে এপেশায় আপনিও গড়তে পারেন আপনার কাংখিত ক্যারিয়ার।

এক নজরে একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট

সাধারণ পদবী:ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট
বিভাগ:ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্সি
প্রতিষ্ঠানের ধরন:সরকারি, প্রাইভেট ফার্ম/কোম্পানি, ফ্রিল্যান্সিং, অন্যান্য
ক্যারিয়ারের ধরন:পার্ট-টাইম, ফুল টাইম
লেভেল:এন্ট্রি, মিড
অভিজ্ঞতা সীমা:কাজ ও প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষ
সম্ভাব্য বেতনসীমা:৳২৫,০০০ – কাজ, প্রতিষ্ঠান ও অভিজ্ঞতাসাপেক্ষ
সম্ভাব্য বয়সসীমা:কাজসাপেক্ষ
মূল স্কিল:প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট, মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা
বিশেষ স্কিল:বাজারধারনা, গ্রাহক চাহিদা সম্পর্কে ধারনা থাকা

কোন ধরণের প্রতিষ্ঠানে একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট কাজ করেন?

  • ব্যাংক বীমা কর্পোরেশনে;
  • আর্থিক লেনদেনকারী ও ঋন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান;
  • বহুজাতিক ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান;
  • আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থা।

একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট কী ধরনের কাজ করেন?

  • তিনি যে সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন সেখানকার তথ্য সংগ্রহ করে ও গবেষনা করে সে সংস্থার করণীয় নির্ধারন করা;
  • সুনির্দিষ্ট দল ও উপদল পরিচালনা করে সুনির্দিষ্ট কাজ আদায় করা;
  • নতুন ব্যবসায়িক ধারনা দেয়া ও সেটাকে উপস্থাপন করাবিভিন্ন ব্যবসায়িক অংশীদারদের সাথে যোগাযোগ রাখা ও সমন্বয় রাখা;
  • বিভিন্ন প্রকল্প ও প্রোগ্রাম পরিচালনা করাতাত্ত্বিক ও অংশগ্রহনমূলক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সমস্যা চিহ্নিত করা ও সমাধানের চেষ্টা করা;

একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্টের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট হতে চাইলে নূন্যতম স্নাতক হতে হয়। যেকোনো বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রীধারীরা এপেশায় আসতে পারেন। তবে ব্যবসা প্রশাসন, ব্যবস্থাপনা, মার্কেটিং, অর্থনীতি, প্রকৌশল শাস্ত্রের স্নাতকরা কিছু কিছু প্রতিষ্ঠানে অগ্রাধীকার পান। এছাড়া অনেক প্রতিষ্ঠানে এমবিএ ডিগ্রীধারী ছাড়া এপদে নিয়োগ দেয়া হয়না ।

একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্টের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • দলগতভাবে কাজ করার মানসিকতা;
  • আন্তযোগাযোগ করার দক্ষতা;
  • সৃজনশীল ও উদ্ভাবনী;
  • কৌশলগত পরিকল্পনা করার সক্ষমতা;
  • চাপে ও ঝুঁকি নিয়ে কাজ করার আগ্রহ;
  • নতুন ব্যবসায়িক ধারা সম্পর্কে অবহিত থাকা;

কোথায় পড়বেন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্সি?

যেহেতু বাংলাদেশের স্বীকৃত যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয় গ্রাজুয়েটরা এ পেশায় আসতে পারেন সেইসাথে এমবিএ ডিগ্রিধারীরা অগ্রাধিকার পান তাই যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক করে এমবিএ করে এপেশায় আসতে পারেন তবে পেশাদারি সার্টিফিকেটের জন্য The Institute of Management Consultants Bangladesh (IMCB) এর কোর্স করা যেতে পারে।

একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্টের মাসিক আয় কেমন?

প্রতিষ্ঠান ভেদে একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট এর মাসিক আয় ভিন্নতর হতে পারে। তবে সাধারনত কাজের শুরুতে ২৫,০০০ -৩০,০০০টাকায় এ পেশায় আসার সুযোগ আছে যা পদোন্নতি ও অভিজ্ঞতার সাথে বেড়ে যায় বহুগুন।

ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্টের?

একজন ম্যানেজমেন্ট কনসালট্যান্ট এর চাহিদা বর্তমানে অনেক বেশি। ব্যাংকগুলোতে কিংবা বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানের অর্থনৈতিক, শুল্ক/কর বিভাগে কাজের সুযোগ অনেক বেড়ে যাওয়াতে এপেশায় ভালো কাজ করার অভিজ্ঞতা ও সততা দিয়ে পদোন্নতি পেয়ে সিইও পর্যন্ত হওয়া সম্ভব,সেই সাথে রয়েছে উন্নত আয়ের সম্ভাবনা।

Loading

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।