সমস্যা সমাধানের দক্ষতা কী ও কীভাবে অর্জন করবেন?

সমস্যা সমাধানের দক্ষতা কী ও কীভাবে অর্জন করবেন? - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

প্রতিটি সেক্টরের প্রায় সব পেশার কর্মীদের কাছে সমস্যা সমাধানের দক্ষতা চান নিয়োগদাতারা। ক্যারিয়ারে সাফল্য নিশ্চিত করার জন্য এ দক্ষতা অর্জন করা আপনার জন্য অবশ্যই জরুরি।

সমস্যা সমাধানের দক্ষতা বলতে কী বোঝায়?

কাজের ক্ষেত্রে কোন অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি বা সমস্যা ঠিকভাবে সামাল দেবার সামর্থ্যকে সমস্যা সমাধানের দক্ষতা বলা হয়। তবে এটি একক কোন দক্ষতা নয়। বরং বেশ কয়েকটি দক্ষতার সমন্বয়ে এ সামর্থ্য তৈরি হয় (এ কারণে ইংরেজিতে একে বলা হয় “Problem Solving Skills”)। যেমন:

  • সৃজনশীলভাবে চিন্তা করার ক্ষমতা
  • মনোযোগ দিয়ে অন্যের বক্তব্য অনুধাবন করার সামর্থ্য
  • গবেষণার দক্ষতা
  • বিশ্লেষণী ক্ষমতা
  • যোগাযোগের দক্ষতা
  • সিদ্ধান্ত নেবার দক্ষতা
  • দলগত কাজে দক্ষতা

যেকোন ক্যারিয়ারের যেকোন পর্যায়ে সমস্যা সমাধানের দক্ষতা কাজে আসে। সে কারণে আপনি যে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করেন, সে ইন্ডাস্ট্রি সম্পর্কিত জ্ঞান থাকা গুরুত্বপূর্ণ। যেমন, আপনি যদি একজন প্যাথলজিস্ট হয়ে থাকেন, তাহলে রোগ নির্ণয়ের যন্ত্রপাতির ব্যবহার আপনাকে জানতে হবে।

সমস্যা সমাধানের প্রক্রিয়া কী?

সমস্যার জটিলতার ভিত্তিতে সমাধান নির্ধারিত হয়। তবে সাধারণ কিছু ধাপ রয়েছে।

১. সমস্যার কারণ ও ধরণ নির্ণয়

এ ধাপে মূলত আপনি সমস্যার অস্তিত্বকে স্বীকার করবেন। সমস্যাটি কতটা জটিল, এর ধরন ও প্রভাব চিহ্নিত করতে হবে আপনাকে। অর্থাৎ পুরো সমস্যার একটি পরিষ্কার ধারণা পেতে হবে। এর জন্য দরকার:

  • প্রয়োজনীয় সব তথ্য সংগ্রহ করা;
  • সমস্যার সাথে পরিচিত মানুষদের সাথে কথা বলা;
  • সংগৃহীত তথ্য বিশ্লেষণ করা।

২. সমস্যার সম্ভাব্য সমাধান বের করা

এ ধাপে আপনাকে সমস্যার সম্ভাব্য কয়েকটি সমাধান দাঁড় করাতে হবে। আপনি যদি কোন দলের সাথে কাজ করেন, তাহলে তাদের মতামত বিবেচনায় আনা জরুরি। বিশেষ করে জটিল সমস্যার সমাধানে বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মীদের অংশগ্রহণ আপনার প্রক্রিয়াকে সাহায্য করবে।

৩. সমাধান নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ

এ ধাপে আপনার গবেষণা ও বিশ্লেষণের ভিত্তিতে চূড়ান্ত সমাধান ঠিক করবেন। সময়, খরচ ও প্রয়োজনীয় জনবলসহ বিভিন্ন বিষয় মাথায় রাখতে হবে এর জন্য। এর ভিত্তিতে তৈরি করতে হবে পরিকল্পনা।

৪. সমাধান বাস্তবায়ন

সমাধানের পরিকল্পনা চূড়ান্ত হবার পর তার যথাযথ বাস্তবায়ন করতে হবে আপনাকে। খেয়াল রাখুন যে, এ সময় নতুন কোন সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৫. সমাধানের মূল্যায়ন

আপনার সমাধান কি আদৌ কাজ করছে? নতুন সমস্যা দেখা দিলে তার কারণ কী হতে পারে? এ সমস্যা ভবিষ্যতে আবার হবার সম্ভাবনা কেমন? এসব প্রশ্নের ভিত্তিতে সমাধানের মূল্যায়ন করতে হবে আপনাকে।

সমস্যা সমাধানের দক্ষতা বাড়ানোর উপায় কী?

এটি বাস্তব পরিস্থিতিনির্ভর একটি দক্ষতা। তাই পেশাগত ও ব্যক্তিগত জীবনের বিভিন্ন পর্যায়ের সমস্যা সমাধান করার মাধ্যমে এ দক্ষতা অর্জন করা সম্ভব।

  • আপনার কাজের ফিল্ড নিয়ে যথাসম্ভব টেকনিক্যাল জ্ঞান ও দক্ষতা বাড়ান। সমস্যা সমাধানের প্রক্রিয়া তাহলে অনেকাংশে সহজ হয়ে আসবে।
  • যেকোন সমস্যাকে নতুন কিছু শেখার সুযোগ হিসাবে গ্রহণ করুন। এর জন্য যে আপনাকে শুধু সমস্যা খুঁজে বেড়াতে হবে, তা কিন্তু নয়। কোন একটা বিষয় নিয়ে কাজ করলেই দেখবেন কোন না কোন সমস্যা দেখা দিচ্ছে। তার সমাধান করে ফেলুন!
  • অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতি কীভাবে মোকাবেলা করবেন, সে সম্পর্কে নিয়মিত চিন্তা করুন। তেমন পরিস্থিতি বাস্তবে দেখা দিলে তুলনামূলকভাবে কম সময়ে সমাধান নিয়ে সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারবেন। তবে কাল্পনিক সমস্যা যেন আপনার দুশ্চিন্তার কারণ না হয়ে দাঁড়ায়, সে ব্যাপারে খেয়াল রাখুন।
  • অন্যরা কীভাবে সমস্যার সমাধান করেন, তা পর্যবেক্ষণ করুন। তিনি আপনার বস হতে পারেন, আবার হতে পারেন সহকর্মী।
Loading

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।