সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ

সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

একজন সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ যেকোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কাজ করে থাকেন। এ পেশায় থাকলে কোম্পানির পণ্যের বিক্রি বাড়াতে হবে আপনাকে। সাথে পুরানো ও নতুন কাস্টমারদের কাছে সেবা পৌঁছানোর দায়িত্বও থাকবে।

এক নজরে একজন সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ

সাধারণ পদবী: সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ
বিভাগ: সব ধরনের ইন্ডাস্ট্রি
প্রতিষ্ঠানের ধরন: সাধারণত প্রাইভেট ফার্ম/কোম্পানি
ক্যারিয়ারের ধরন:ফুল-টাইম
লেভেল: এন্ট্রি
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য অভিজ্ঞতা সীমা: ০ – ২ বছর
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳১৫,০০০
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বয়স: ২৫ বছর
মূল স্কিল: ব্যবসায়িক ধারণা, ব্যবসায়িক সমাধান দিতে পারা, মধ্যস্থতা করার ক্ষমতা, যোগাযোগের দক্ষতা
বিশেষ স্কিল: সহযোগিতার সম্পর্ক তৈরি করতে পারা, সৃজনশীল চিন্তা করার ক্ষমতা

একজন সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ কোথায় কাজ করেন?

এ পদটি সাধারণত যেকোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে পাওয়া যায়। বহুজাতিক কোম্পানি থেকে শুরু করে পোলট্রি ফার্মে পর্যন্ত কাজ করার সুযোগ পাবেন আপনি।

একজন সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ কী ধরনের কাজ করেন?

  • কোম্পানির পণ্য বা সার্ভিসের অর্ডারের সংখ্যা বাড়ানো;
  • পণ্য বা সার্ভিসের প্রচার করা;
  • কীভাবে বাজারে কোম্পানির পণ্য বা সার্ভিসের প্রসার ঘটানো যায়, সে ব্যাপারে নতুন ধারণা দেয়া;
  • কোম্পানির পণ্য বা সার্ভিসের প্রচারণার জন্য অভিনব ও আকর্ষণীয় উদ্যোগ নেয়া;
  • পণ্য বা সার্ভিস বিক্রির রেকর্ড রাখা ও নিয়মিত প্রতিবেদন তৈরি করা;
  • প্রতিষ্ঠানের কাস্টমারদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখা;
  • নতুন কাস্টমারদের সাথে ব্যবসায়িক সম্পর্ক তৈরি করা।

একজন সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সার্ভিস ভেদে যোগ্যতার ধরন আলাদা হয়।

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ অধিকাংশ কোম্পানিতে এ পদের জন্য ব্যাচেলর ডিগ্রি চাওয়া হয়। তবে কিছু কোম্পানিতে মাস্টার্স ডিগ্রির প্রয়োজন হতে পারে।

ব্যবসা সংক্রান্ত ডিগ্রির উপর জোর দেয়া হয় এ পেশায়। শিল্পকারখানার ক্ষেত্রে ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রির প্রয়োজন হতে পারে।

বয়সঃ প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষে বয়সের সীমা নির্ধারিত হয়। সাধারণত আপনার বয়স কমপক্ষে ২২ বছর হতে হবে।

অভিজ্ঞতাঃ এ পেশায় অভিজ্ঞদের প্রাধান্য রয়েছে। সাধারণত ১-২ বছরের ব্যবসা সংক্রান্ত অভিজ্ঞতা কাজে আসে।

বিশেষ শর্তঃ বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে নারী বা পুরুষ প্রার্থীর কথা উল্লেহ করে দেয়া থাকে।

একজন সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • ব্যবসায়িক সুযোগ নির্ণয় করার ক্ষমতা;
  • খুঁটিনাটি বিষয় বিশ্লেষণ করার দক্ষতা;
  • বাংলা ও ইংরেজি – দুই ভাষাতেই ভালো যোগাযোগ করতে পারা;
  • কাস্টমারদের সাথে ভালো ব্যবসায়িক সম্পর্ক বজায় রাখার ক্ষমতা;
  • আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে মধ্যস্থতা করার দক্ষতা;
  • তথ্য-উপাত্তসহ প্রতিবেদন তৈরি করতে পারা।

এ পেশায় বিভিন্ন কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন জানা দরকারি। যেমন, এমএস অফিস (MS Office)। এছাড়া টেকনিক্যাল প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে পণ্য বা সার্ভিসের টেকনিক্যাল দিক সম্পর্কে খুব ভালো ধারণা রাখতে হবে আপনাকে।

একজন সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভের মাসিক আয় কেমন?

মাসিক আয় কাজ ও প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষ। গড়ে ১৫ হাজার টাকা বেতন দিয়ে এন্ট্রি লেভেলের চাকরি শুরু হতে পারে।

একজন সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

সাধারণত সেলস বা মার্কেটিং বিভাগের এন্ট্রি লেভেলে আপনার কাজ শুরু হবে। এ ক্ষেত্রে জুনিয়র বা সহকারী এক্সিকিউটিভের দায়িত্ব পেতে পারেন। পরে সিনিয়র পদে উন্নীত হবেন। যেমন, মার্কেটিংয়ে ব্র্যান্ড ম্যানেজার পদ রয়েছে।

ক্যারিয়ারে সম্ভাব্য সবচেয়ে উঁচু পদ পেতে পারেন আপনার বিভাগের পরিচালক হিসাবে।

তথ্যসূত্র

১. এনএইচটি গ্রুপ, বিজ্ঞপ্তির তারিখঃ ২০ মার্চ ২০১৮, বিডিজবস ডট কম।

২. প্রটেকফায়ার বাংলাদেশ লিমিটেড, বিজ্ঞপ্তির তারিখঃ ২১ মার্চ ২০১৮, বিডিজবস ডট কম।

৩. অনামিকা অ্যাসোসিয়েটস, বিজ্ঞপ্তির তারিখঃ ২৫ মার্চ ২০১৮, বিডিজবস ডট কম।

৪. ক্যাপ্টেন আল-হাদীদ স্টিল মিলস লিমিটেড, বিজ্ঞপ্তির তারিখঃ ১ এপ্রিল ২০১৮, বিডিজবস ডট কম।

৫. মেঘনা গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রিজ, বিজ্ঞপ্তির তারিখঃ ৮ এপ্রিল ২০১৮, বিডিজবস ডট কম।

৬. পেন্টাজেমস, বিজ্ঞপ্তির তারিখঃ ৮ এপ্রিল ২০১৮, বিডিজবস ডট কম।

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।