সেলস ম্যানেজার

সেলস ম্যানেজার হতে চাইলে - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সার্ভিস বিক্রির জন্য বিভিন্ন শাখা বা ব্রাঞ্চ থাকে। এসব ব্রাঞ্চ যেন বিক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারে, তার জন্য সেলস ম্যানেজার নিয়োগ করা হয়। এ পেশায় আপনার মূল দায়িত্ব হবে সেলস কর্মীদের কাজ তত্ত্বাবধান করা।

এক নজরে একজন সেলস ম্যানেজার

সাধারণ পদবী: সেলস ম্যানেজার
বিভাগ: সেলস, রিটেইল
প্রতিষ্ঠানের ধরন: প্রাইভেট ফার্ম/কোম্পানি
ক্যারিয়ারের ধরন: ফুল-টাইম
মিড লেভেলে সম্ভাব্য অভিজ্ঞতা সীমা: ৪ – ৬ বছর
মিড লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳৪০,০০০- ৳৬০,০০০ টাকা (সাথে থাকে বিক্রির উপর কমিশন)
মিড লেভেলে সম্ভাব্য বয়স: ৩৫ – ৪০ বছর
মূল স্কিল: ব্যবসায়িক সমাধান দিতে পারা, মধ্যস্থতা করার ক্ষমতা, যোগাযোগের দক্ষতা, কর্মী ব্যবস্থাপনা
বিশেষ স্কিল: বিশ্লেষণী ক্ষমতা, মানসিক চাপ সামলানোর ক্ষমতা

একজন সেলস ম্যানেজার কোথায় কাজ করেন?

সব ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সেলস ম্যানেজার নিয়োগ দেয়া হয়। সাধারণত আপনাকে একটি নির্দিষ্ট দল বা শাখাকে পরিচালনা করতে হবে।

একজন সেলস ম্যানেজার কী ধরনের কাজ করেন?

  • কোম্পানির পণ্য বা সার্ভিসের অর্ডারের সংখ্যা কীভাবে বাড়ানো যায়, সে ব্যাপারে বিস্তারিত পরিকল্পনা ও কর্মসূচি তৈরি;
  • পণ্য বা সার্ভিসের প্রচারণার জন্য কর্মীদের দিকনির্দেশনা দেয়া;
  • পণ্য বা সার্ভিস বিক্রির জন্য ডিস্ট্রিবিউটর নিয়োগ দেয়া;
  • পণ্য বা সার্ভিস বিক্রির রেকর্ড পর্যবেক্ষণ করা;
  • সেলস দলের সামগ্রিক কাজের তদারকি করা;
  • মার্কেটিং দলের সাথে কাজের সমন্বয় রাখা;
  • কীভাবে বাজারে কোম্পানির পণ্য বা সার্ভিসের প্রসার ঘটানো যায়, সে ব্যাপারে নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করা;
  • সেলস কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেয়া;
  • নতুন কাস্টমারদের সাথে ব্যবসায়িক সম্পর্ক তৈরি করা।

একজন সেলস ম্যানেজারের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সার্ভিস ভেদে যোগ্যতার ধরন আলাদা হয়।

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ অধিকাংশ কোম্পানিতে এ পদের জন্য ব্যবসা সংক্রান্ত ন্যূনতম ব্যাচেলর ডিগ্রির দরকার হয়। তবে মাস্টার্স ডিগ্রির প্রাধান্য রয়েছে। অন্যদিকে শিল্পকারখানার ক্ষেত্রে ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রির প্রয়োজন হতে পারে।

বয়সঃ প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষে বয়সের সীমা নির্ধারিত হয়। সাধারণত আপনার বয়স কমপক্ষে ৩৫ – ৪০ বছর হতে হবে।

অভিজ্ঞতাঃ এ পেশায় অভিজ্ঞদের প্রাধান্য রয়েছে। সাধারণত ৩ – ৪ বছরের অভিজ্ঞতা কাজে আসে। বড় প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ৫ – ৮ বছরের অভিজ্ঞতাও চাওয়া হতে পারে।

একজন সেলস ম্যানেজারের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

  • নেতৃত্ব দানের ক্ষমতা;
  • ব্যবসায়িক সুযোগ নির্ণয় করার ক্ষমতা;
  • খুঁটিনাটি বিষয় বিশ্লেষণ করার দক্ষতা;
  • বাংলা ও ইংরেজি – দুই ভাষাতেই ভালো যোগাযোগ করতে পারা;
  • আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে মধ্যস্থতা করার দক্ষতা;
  • সমস্যা সমাধানের দক্ষতা;
  • কর্মী ও কাস্টমারদের সাথে ভালো ব্যবসায়িক সম্পর্ক বজায় রাখার ক্ষমতা।

এ পেশায় বিভিন্ন কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন জানা দরকারি। এছাড়া প্রোডাক্ট ডিস্ট্রিবিউশন সম্পর্কে খুব ভালো ধারণা রাখতে হবে আপনাকে।

সেলস ম্যানেজার হিসাবে উন্নীত হবার জন্য সেলসের দক্ষতা থাকা আবশ্যক।

একজন সেলস ম্যানেজারের মাসিক আয় কেমন?

মাসিক আয় কাজ ও প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষ। গড়ে ৳৪০,০০০ – ৳৬০,০০০ বেতন পেতে পারেন। এছাড়া পণ্য বা সার্ভিস বিক্রির উপর লভ্যাংশ অর্জনের সুযোগ রয়েছে বহু প্রতিষ্ঠানে।

একজন সেলস ম্যানেজারের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

সাধারণত সেলস বা মার্কেটিং বিভাগের এন্ট্রি লেভেলে (যেমন: সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ বা সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ হিসাবে) আপনার কাজ শুরু হবে। পারফরম্যান্স ভালো হলে ৪ – ৬ বছরের অভিজ্ঞতা অর্জনের উপর সেলস ম্যানেজার হিসাবে দায়িত্ব পেতে পারেন।

ক্যারিয়ারে সম্ভাব্য সবচেয়ে উঁচু পদ পেতে পারেন সেলস বিভাগের প্রধান হিসাবে।

Loading

2 thoughts on “সেলস ম্যানেজার

  1. I’m new as a Regional Sales Manager but working as a territory sales officer and Branch manager with more than Saven years of experience. I am an enthusiastic person who can maintain business relation with existing clients with business primarily and with comfortable primary communication with potential clients.

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।