ডেন্টিস্ট – দাঁতের ডাক্তার

ডেন্টিস্ট - দাঁতের ডাক্তার: ক্যারিয়ার প্রোফাইল - ক্যারিয়ারকী (CareerKi)

একজন ডেন্টিস্ট রোগীর দাঁত, মাড়ি, চোয়াল ও মুখের ক্ষয় এবং অন্যান্য রোগ নির্ণয় ও নিরাময়ের জন্য পরামর্শ, পরীক্ষা, অস্ত্রোপচার ও খাদ্যতালিকা তৈরির কাজ করে থাকেন। দেশের চিকিৎসা খাতের সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগের অন্যতম সম্ভাবনাময় এ পেশার সুযোগ প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি অভিজ্ঞতা ও পেশাগত সুনাম অর্জন করতে পারলে সামাজিক মর্যাদার সাথে সাথে ভালো উপার্জন সম্ভব এ পেশার মাধ্যমে।

এক নজরে একজন ডেন্টিস্ট

সাধারণ পদবী: ডেন্টিস্ট, দাঁতের ডাক্তার
বিভাগ: স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা – ডেন্টিস্ট্রি
প্রতিষ্ঠানের ধরন: সরকারি, বেসরকারি
ক্যারিয়ারের ধরন: ফুল-টাইম, পার্ট-টাইম
লেভেল: এন্ট্রি, মিড
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য অভিজ্ঞতা সীমা: কাজ ও প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষ
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য গড় বেতন: ৳২০,০০০ – কাজ, প্রতিষ্ঠান ও অভিজ্ঞতাসাপেক্ষ
এন্ট্রি লেভেলে সম্ভাব্য বয়স: ২২ বছর
মূল স্কিল: সঠিকভাবে রোগ নির্ণয়ের দক্ষতা, রোগীকে উপযুক্ত চিকিৎসা দিতে পারা, ঔষধ ও চিকিৎসা প্রযুক্তি সম্পর্কে ভালো জ্ঞান রাখা
বিশেষ স্কিল: সেবার মানসিকতা থাকা, ধৈর্য, গভীর মনোযোগ, যোগাযোগের দক্ষতা

একজন ডেন্টিস্ট কোথায় কাজ করেন?

  • সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রে;
  • বেসরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রে;
  • আইনশৃঙ্খলা ও সামরিক বাহিনীর চিকিৎসা বিভাগে;
  • ব্যক্তিগত ক্লিনিকে।

বাংলাদেশের ৯টি সরকারি ও ১৮ টি বেসরকারি ডেন্টাল কলেজের বহির্বিভাগ থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত ক্লিনিক বা চেম্বারে রোগী দেখার সুযোগ আছে একজন ডেন্টিস্টের। এছাড়াও বহু উন্নয়ন সংস্থা পরিচালিত ফ্রি ফ্রাইডে ডেন্টাল ক্লিনিক বা প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য নির্মিত ভাসমান ডেন্টাল ক্লিনিক বা ডেন্টাল ভ্যানগুলোতেও প্রচুর ডেন্টিস্ট কাজ করে থাকেন।

একজন ডেন্টিস্ট কী ধরনের কাজ করেন?

একজন ডেন্টিস্ট মানুষের মুখ ও দাঁতের, চোয়ালের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতকরণে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করে থাকেন। যেমনঃ

  • দাঁতের ক্ষয় অপসারণ ও ক্ষত পূরণ করা;
  • দাঁতের পাথুরে স্তর অপসারণ, চিড় মেরামত করা ও নষ্ট দাঁত তুলে ফেলা;
  • সাদা, উজ্জ্বল ও মজবুত দাঁতের জন্য প্রয়োজনীয় ঔষধ দেয়া;
  • দাঁত ও চোয়ালের এক্স রে পরীক্ষা করা;
  • দাঁতের আকার-আকৃতি পুনরুদ্ধারের জন্য বিশেষ যন্ত্রের নকশা করা;
  • দাঁত ও চোয়ালের হাড়ের অস্ত্রোপচার করা;
  • দাঁত ও মুখের স্বাস্থ্য সম্পর্কে রোগীদের সচেতন করা।

একজন ডেন্টিস্টের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ যেকোন স্বীকৃত ডেন্টাল কলেজ থেকে ব্যাচেলর অফ ডেন্টাল সার্জারি ডিগ্রি অর্জন করতে হবে।

বয়সঃ প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষে বয়সের সীমা নির্ধারিত হয়। তবে এন্ট্রি লেভেলের চাকরিতে ন্যূনতম ২২-২৩ বছর হতে হবে আপনাকে।

অভিজ্ঞতাঃ প্রাথমিক পর্যায়ে একজন ডেন্টিস্ট হিসাবে কাজ করতে হলে ন্যূনতম ইন্টার্নশিপের অভিজ্ঞতা প্রয়োজন।

একজন ডেন্টিস্টের কী ধরনের দক্ষতা ও জ্ঞান থাকতে হয়?

চিকিৎসা জ্ঞানের পাশাপাশি আলাদা কিছু দক্ষতাও অর্জন করতে হবে আপনাকে। এর মধ্যে রয়েছেঃ

  • রোগীর সমস্যার কথা মনোযোগ দিয়ে শোনা;
  • ধৈর্যের সাথে রোগীর দাঁত ও মুখের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা;
  • দাঁতের চিকিৎসায় ব্যবহৃত প্রযুক্তির ব্যবহার শেখা;
  • গভীর মনোযোগের সাথে নিখুঁতভাবে অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করতে পারা;
  • দাঁতের চিকিৎসার নতুন নতুন পদ্ধতি ও গবেষণা সম্পর্কে খোঁজ রাখা ও তার চর্চা করা।

কোথায় পড়বেন ডেন্টিস্ট্রি?

বাংলাদেশে ৪টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদে ডেন্টিস্ট্রি অধিভুক্ত আছে, যেখান থেকে বাংলাদেশের সরকারি ৯টি ও বেসরকারি ১৮টি ডেন্টাল কলেজে ডেন্টিস্ট্রি পড়ানো হয়ঃ

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়;
  • রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়;
  • চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়;
  • শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

উল্লেখ্য যে, ডেন্টাল কলেজ থেকে পাশ করার পর প্র্যাকটিস করার জন্য বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল থেকে সনদ নিতে হয়। এর জন্য আপনাকে সফলভাবে ইন্টার্নশিপ সম্পন্ন করতে হবে।

একজন ডেন্টিস্টের মাসিক আয় কেমন?

শুরুর দিকে একজন ডেন্টিস্ট গড়ে মাসিক ৳২০,০০০ – ৳২৫,০০০ আয় করতে পারেন। অভিজ্ঞতার সাথে আয়ও বেড়ে যাবে। সাধারণত দাঁত ও মুখের জটিল সমস্যার উন্নত চিকিৎসা বেশ ব্যয়বহুল। তাই উচ্চতর প্রশিক্ষণ থাকলে একজন অভিজ্ঞ ডেন্টিস্ট মাসে লক্ষাধিক টাকা অর্জন করতে পারেন।

একজন ডেন্টিস্টের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

বর্তমানে মানুষ দাঁত ও মুখের স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতন হয়ে ওঠায় এ পেশার সম্ভাবনা বেড়েছে। সরকারি পর্যায়ে বিসিএস ক্যাডার ছাড়াও বিভিন্ন হাসপাতাল ও চিকিৎসাকেন্দ্রে দাঁতের ডাক্তারদের চাহিদা বেড়েছে। বিশেষজ্ঞ ডাক্তার হতে হলে কিংবা ব্যক্তিগত চেম্বারে রোগী দেখতে হলে উচ্চতর ডিগ্রি ও প্রশিক্ষণের কোন বিকল্প নেই। কিন্তু তার আগের সময়টুকু কাজ করে প্রয়োজনীয় অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারেন। এ অভিজ্ঞতা আপনার ক্যারিয়ার গড়তে সাহায্য করবে।

Loading

Leave a Reply

আপনার নাম ও ইমেইল ঠিকানা দেয়া আবশ্যক। তবে মতামতের সাথে ইমেইল দেখানো হবে না।